নাটক- সিনেমা, ফেসবুক এগুলো দেখলে কি রোজা হয়?

In - Jun 13, 2017

মুসলমানদের জন্য রোজা ফরজ। তাই আমরা আল্লাহ তাআলার শাস্তি থেকে মুক্তি লাভ করার জন্য আল্লাহ তাআলাকে সন্তুষ্টি লাভের জন্য রোজা রাখি। রোজা রেখে টিভি দেখি, নাটক দেখি, সিনেমা দেখি। এতে কি রোজার কোনো সমস্যা হবে? অনেকে তো ফেসবুক চালায়, সেখানে অনেক কিছু দেখে। তাহলে কি রোজা নষ্ট হয়ে যাবে? আসুন আমরা জেনে নেই এমন প্রশ্নের উত্তর। উত্তর: রোজা রাখেন নাটকও দেখেন, সিনেমাও দেখেন, ফেসবুকও দেখেন, টেলিভিশনও দেখেন। সিয়ামের সঙ্গে মূলত প্রকৃত সিয়াম যেটি সেটি তিনি পালন করছেন না। সহজ সিয়াম হচ্ছে, পানাহার থেকে বিরত থাকা, এটাকে উপবাস বলে। তিনি উপবাস থাকছেন, কিন্তু সিয়াম পালন করছেন না।



সিয়াম হচ্ছে, বিরত থাকা এবং সর্বপ্রথম বিরত থাকা হচ্ছে হারাম থেকে। হারাম থেকে বিরত না থেকে আপনি শুধু পানাহার থেকে বিরত থাকছেন। এটি অপ্রয়োজনীয় সিয়াম। এতে সামান্যতম ফায়দা বা ফজিলত লাভ করতে পারবেন না। এ জন্য রোজা রেখে যারা এসব কাজ করছেন, তাঁরা অপ্রয়োজনীয় সিয়াম পালন করছেন, সিয়ামের কোনো সওয়াব তাঁরা লাভ করতে পারবেন না। রোজা রাখাটা সম্পূর্ণ বিরত থাকার নাম। সুতরাং প্রথমেই হারাম কাজ থেকে নিজেকে বিরত রাখতে হবে। তাই আল্লাহর নবী (সা.) হাদিসের মধ্যে বলেছেন, ‘আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের কোনো প্রয়োজন নেই যে সে পানাহার বর্জন করুক।’ যে কাজটি করছেন আসলে খুবই গর্হিত কাজ।



এখানে একটি বিষয় আসতে পারে। সেটি হলো টেলিভিশনে আপনি কী দেখছেন? আপনি আপনার প্রশ্নে স্পষ্ট করেছেন তিনি নাটক, সিনেমা দেখছেন। টেলিভিশনে যদি হারাম কিছু না দেখেন তাহলে টিভি দেখাটা নাজায়েজ নয়। তবে আপনি আপনার প্রশ্নে বুঝিয়েছেন, আপনি সিয়ামের নৈতিক যেই দাবি রয়েছে সেই দাবি পূরণ করছেন না। এর মাধ্যমে সিয়ামকে বিনষ্ট করে বা ক্ষতি করে এই ধরনের কাজে লিপ্ত রয়েছেন।

Googlepluspint
লিখেছেন-
Bangla Tips Zone

    Copy Sms

  • নাটক- সিনেমা, ফেসবুক এগুলো দেখলে কি রোজা হয়?

  • Whatsapp
Powered by Blogger.