নতুন কোচ নিয়ে মুখ খুললেন কোহালি

In - Jun 30, 2017
কোচ বিতর্ক নিয়ে মুখ খুললেন বিরাট কোহালি। সোজাসাপ্টা ভঙ্গিতে তিনি বলে দিলেন, যদি বোর্ড থেকে তাঁকে জিজ্ঞেস করা হয় অবশ্যই টিমের মতামত জানাবেন।
কোহালি ফের ঠারেঠোরে বুঝিয়ে দিয়েছেন যে, টিম মোটামুটি ভেবেই রেখেছে কে তাঁদের পছন্দের নাম। উল্লেখযোগ্য হচ্ছে, তিনি এক বারও বলেননি ‘আমি জানিয়ে দেব’। বলেছেন গোটা টিমের কথা। ভিভ রিচার্ডসের অ্যান্টিগায় বসে তিনি বারবারই বলেছেন, টিমের পছন্দ নিয়ে বোর্ডকে জানাবেন যদি বোর্ড থেকে তাঁদের জিজ্ঞেস করা হয়।
অর্থাৎ, নতুন কোচ কে হবেন তা নিয়ে গোটা দল যে ঐক্যবদ্ধ হয়ে রয়েছে, সেটাকেই বোঝাতে চেয়েছেন কোহালি। ঠিক যেমন ঐক্যবদ্ধ ছিল অনিল কুম্বলের অপসারণ নিয়ে। এত দিন হয়ে গেলেও এখনও পর্যন্ত কুম্বলের পাশে দাঁড়িয়ে বা তাঁকে ধন্যবাদ জানিয়ে কোনও টুইট করেননি।
সাধারণত, ভারতীয় ক্রিকেটের বিতর্কিত বিষয় নিয়ে প্রশ্ন করা হলে অধিনায়কেরা এড়িয়ে যেতেন। এটাই ছিল এত দিনের রেওয়াজ। কোহালি সেই প্রথাকেও পাল্টে দিচ্ছেন। বেশ খোলামেলা ভাবেই তিনি এ দিন সাংবাদিকদের বেশ কয়েকটি প্রশ্নের জবাব দিতে থাকেন কোচ নিয়ে।
যেমন বললেন, ‘‘কোনও আভ্যন্তরীণ তথ্য আমি এ ব্যাপারে দিতে পারব না। তবে আমরা টিম হিসেবে বক্তব্য দিই তখনই যদি বোর্ড থেকে আমাদের জিজ্ঞেস করা হয়।’’
শুক্রবার অ্যান্টিগায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে তৃতীয় এক দিনের ম্যাচ। তার আগে প্রাক-ম্যাচ সাংবাদিক সম্মেলনে কথা বলছিলেন কোহালি। তাঁকে আরও প্রশ্ন করা হল কোচ নিয়ে। অধিনায়ক বলে দেন, ‘‘ব্যক্তিগত মতামতের এখানে কোনও ব্যাপার নেই। কাউকে ব্যক্তিগত ভাবে কিছু জিজ্ঞেস করা হয় না। টিমের কাছে জানতে চাওয়া হয়। যদি এবং যখন সেটা করা হবে, আমরা টিমের পক্ষ থেকে মতামত জানাব।’’ এর পর আরও প্রশ্ন করা হলে কোহালি তাৎপর্যপূর্ণ ভাবে যোগ করেন, ‘‘বোর্ডকে মতামত জানানো হয়। তবে সেটা প্রকাশ্যে বলার মানে হয় না।’’
কোহালির এই মন্তব্যেই পরিষ্কার হয়ে যাচ্ছে, কোচ নিয়ে টিম তাদের বক্তব্য বোর্ডের কাছে জানাতে পারে। বোর্ড থেকেও তাঁদের কাছে জানতে চাওয়া হতে পারে তার কারণ, কুম্বলেকে নিয়োগ করার এক বছরের মধ্যেই টিমের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক সম্পূর্ণ ভাবে ভেঙে পড়ে। এই কারণেই আরও বেশি রবি শাস্ত্রীর আবেদন করতে চাওয়া তাৎপর্যপূর্ণ হয়ে উঠছে বলে মনে করা হচ্ছে।
শাস্ত্রী উনিশ মাস ধরে কোহালিদের টিম ডিরেক্টর ছিলেন। তাঁর সঙ্গে কোহালি এবং এই দলের সদস্যদের দারুণ সম্পর্ক। উনিশ মাস দায়িত্বে থাকাকালীন এক বারও কাউকে উষ্মা প্রকাশ করতে শোনা যায়নি। বরং ড্রেসিংরুমে একতার উজ্জ্বল ছবি ফুটিয়ে তুলতে পেরেছিলেন শাস্ত্রী।
কারও কারও মতে, তাঁর কাজ আরও অনেক কঠিন ছিল কারণ সেই সময় শাস্ত্রীকে দু’জন অধিনায়ককে নিয়ে চলতে হয়েছিল। ওয়ান ডে অধিনায়ক মহেন্দ্র সিংহ ধোনি। টেস্টের অধিনায়ক বিরাট কোহালি। এখন সমস্ত ফর্ম্যাটেই অধিনায়ক কোহালি।
দেখেশুনে অনেকের মনে হচ্ছে, কোহালির বৃহস্পতিবারের তাৎপর্যপূর্ণ বিবৃতির পরে শাস্ত্রী হয়তো দৌড়ে আরও এগিয়ে গেলেন। কারণ, ওয়াকিবহাল মহল মনে করছে কোহালির সঙ্গে যেখানে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি চলাকালীনও একাধিক বার দেখা হয়েছে শাস্ত্রীর, তাঁর দিক থেকে ইঙ্গিত না পেলে তিনি ফের আবেদন করার রাস্তায় যেতেন না।
কেউ কেউ এত দূরও বলে ফেলছেন যে, বোর্ডের হাইকম্যান্ডে ইতিমধ্যেই টিমের পছন্দের নাম বলে দিয়েছেন ভারত অধিনায়ক। সেই নাম রবি শাস্ত্রী না হলেই অবাক হতে হবে।
Googlepluspint

    Copy Sms

  • নতুন কোচ নিয়ে মুখ খুললেন কোহালি

  • Whatsapp
Powered by Blogger.